সবধরনের অনুপ্রবেশ বন্ধে বাংলাদেশ সীমান্তে ইসরাইলি মডেল চালু করবে ভারত।

ঢাকা সোমবার ২৩ অক্টোবর ২০১৭:বাংলাদেশ সীমান্তে সব ধরনের অনুপ্রবেশ’ ঠেকাতে ভারতের বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকার সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধ করে দেবে। এমনটি জানিয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। অসাম রাজ্যের দুলিয়াজানে বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষে আয়োজিত এক সমাবেশে এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।সীমান্তে কথিত বাংলাদেশীদের অনুপ্রবেশ বন্ধ করতে না পারায় আসামের কংগ্রেসি সরকারের সমালোচনা করে  রাজনাথ বলেন, ‘যেদিন থেকে বাংলাদেশ সৃষ্টি হয়েছে, তখন থেকেই ভারতে সে দেশের নাগরিকদের অনুপ্রবেশ শুরু হয়েছে এবং তা এখনো অব্যাহত আছে। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়েই বাংলাদেশিরা ভারতে ঢুকে চোরাচালান ও অপরাধমূলক কাজকর্মে লিপ্ত হচ্ছে। আবার গরু চোরাচালান করে নিবিঘ্নে পালিয়ে যাচ্ছে। জানিনা  কী কারণে কংগ্রেস সরকার এটা বন্ধ করেনি বা বন্ধ করতে পারেনি। এখন সময় এসেছে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত পুরোপুরি বন্ধ করে দেয়ার।

Israeli-model-fence'-2.jpgইসরাইল,তাদের ফিলিস্তিন সীমান্তে এই ধরনের প্রযুক্তি নির্ভর কাঁটাতারের বেড়া নির্মান করেছে।

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে অনুপ্রবেশ নিয়ে দু দেশই অনেক বেশি চিন্তিত।কথিত বাংলাদেশীদের অনুপ্রবেশ রুখতে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি বলেন, কিছুদিন আগে তিনি ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত পরিদর্শন করেছেন এবং বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে আলোচনাও করেছেন। রাজনাথ সিং বলেন, ‘আমাদের কিছু সময় দরকার। এরপরই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত একেবারে বন্ধ করে দেব। তখন কেউ আর বাংলাদেশ থেকে এভাবে আসতে পারবে না।’এ ব্যাপারে আমরা ইসরাইলের সাহায্য নিতে পারি। আর এজন্য ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ ও চোরাচালান বন্ধে খুব শিগগিরি চালু হতে যাচ্ছে ইসরাইলি মডেল। কোলকাতা থেকে প্রকাশিত এক বাংলা দৈনিকে  প্রকাশিত হয়েছে যে, আগামী বছর থেকে সীমান্তে ইসরাইলি প্রযুক্তি ব্যবহার করে অত্যাধুনিক বেড়া নির্মান করা হবে।

Israeli-model-fence'-1ইসরাইল-ফিলিস্তিন সীমান্তে এই ধরনের প্রযুক্তি নির্ভর কাঁটাতারের বেড়া নির্মান করেছে  ইসরাইল।

বিএসএফের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল (দক্ষিণবঙ্গ) অজয় কুমার বলেন, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে নজরদারি বাড়াতে বেশ কিছু পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। খুব শিগগিরি আরো কয়েকটি প্রযুক্তিভিত্তিক ব্যবস্থাও চালু করার কাজ শুরু হবে। ইসরাইলে ওই ধরনের ব্যবস্থা থাকায় এটিকে ‘ইসরাইলী মডেল’ও বলা যেতে পারে।
বিএসএফ সূত্রে প্রকাশ, সীমান্তে ১৫০ মিটার পরপর নাইট ভিশন সিসিটিভি ক্যামেরায় এক ধরনের সফটওয়্যার বসানো থাকবে যা সীমান্তের পাঁচশ’ মিটার এলাকায় লোকজনের যাতায়াত হলে কিংবা সেখানে অবস্থানগত কোনও পরিবর্তন হলে বিএসএফ ক্যাম্পের কন্ট্রোল রুমে অ্যালার্ম বেজে উঠবে। এরপরেই দ্রুত ‘কুইক রিঅ্যাকশন টিম’ সেখানে গিয়ে পরিস্থিতি মোকাবিলা করবে। গোটা ব্যবস্থাটাই হবে প্রযুক্তি নির্ভর।
সীমান্ত সমস্যা নিয়ে সম্প্রতি বিএসএফের ত্রিপুরা সীমান্তের মহাপরিদর্শক এস আর ওঝা বলেন, ‘বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ আমাদের খুব সহযোগিতা করছে। কখনো কখনো বিএসএফ ও বিজিবি সদস্যরা চোরাচালান ছাড়াও অপরাধমূলক কাজকর্ম, অনুপ্রবেশ ও অবাঞ্ছিত গতিবিধিতে নজরদারি চালাতে যৌথভাবে টহলদারি চালায়।

Israeli-model-fence'-4ইসরাইল,তাদের ফিলিস্তিন সীমান্তে এই ধরনের প্রযুক্তি নির্ভর কাঁটাতারের বেড়া নির্মান করেছে।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s